OUR PHONE NUMBER: +88 01841 660 004
 
অনলাইনে কেনাকাটা করা শপিং মলে গিয়ে কেনাকাটার করার চেয়ে কেনো ভালো ? তার ৫ টি কারণ  ( পর্ব – ১ )
09 Oct

অনলাইনে কেনাকাটা করা শপিং মলে গিয়ে কেনাকাটার করার চেয়ে কেনো ভালো ? তার ৫ টি কারণ ( পর্ব – ১ )

Posted By: John Times Read: 362 Comments: 0

১) শপিং করে সেটা বহন করার হাত থেকে মুক্তি । 

- ইন্টারনেটের এই যুগে যখন আমরা ঘরে বসেই সহজেই এক দেশ থেকে আরেক দেশে বাস করা বন্ধুর সাথে যোগাযোগ করতে পারছি তবে কেন ঘরে বসেই শপিং নয় ! আপনি অনলাইনে শপিং করার পর আপনার কস্ট করে শপিং ব্যাগ বহন করতে হচ্ছে না । কোন প্রোডাক্ট অর্ডার করে বাসায় আরামে ঘুম দিন আর অনলাইন শপের ডেলিভারি ম্যান এসে আপনার ঘুম ভাঙ্গাবে! কি দরকার মার্কেটে গিয়ে এতো কিছু কেনাকটি করে ৮-১০ টা ব্যাগ টেনে বাসায় আসা ! এখনি তো সময় পরিবর্তনের ! তাই নয় কি !!!!


২) ক্রয় করা পন্য পছন্দ না হলে ফেরত দেওয়ার সুবিধা  !

- ধরুন আপনি অনলাইনে কোন কিছু অর্ডার দিলেন কিন্তু পন্য টি হাতে পাওয়ার পর কোন কারণে আপনার আর সেটি পছন্দ হচ্ছে না । তো আপনি কি করবেন ? ভাবছেন ইসসস রে লস হয়ে গেলও !! 

এখনকার সময়কার অনলাইন শপ গুলো তা হতে দিচ্ছে না ।ভালো মানের প্রতিটি অনলাইন শপেরই প্রোডাক্ট রিটার্ন পলিসি থাকে। আপনি ইচ্ছে করলেই নির্দিষ্ট সময়ের মাঝে আবার প্রোডাক্টি চেঞ্জ বা ফেরত দিয়ে পছন্দ মতো নতুন প্রোডাক্ট নিতে পারবেন ! আর অপরদিকে, 

শপিং মলের অনেক দোকানে তো লিখাই থাকে – “বিক্রিত মাল ফেরতযোগ্য নহে”!

আশা করি এ ব্যপারে আর কিছু লিখা লাগবে না , আপনিই বুঝে গিয়েছেন । 


৩) অনলাইন শপের দ্বারা আপনি খুব সহজেই আপনার বন্ধু – বান্ধবী বা আত্নীয়সজন কে উপহার পাঠাতে পারেন । 

- আচ্ছা ধরুন আপনি কোন কাজে ঢাকার বাহিরে গেলেন । তারপর হটাত মনে পড়লো আজ তো আপনার আদরের ছোট বোন টার জন্মদিন ! কি উপহার না দিতে পেরে মন খারাপ হচ্ছে বুঝি?

কি দরকার মন খারাপের । আপনি নেই তো কি হয়েছে, উপহার ঠিকি পৌছে যাবে আপনার আদরের বোনটির হাতে। আপনি যেখানেই থাকুন না কেন, যে কোন ভালো অনলাইন শপের ওয়েবসাইটে গিয়ে পছন্দমতো কোন গিফট  আইটেম পাঠিয়ে দিন আপনার বাসার ঠিকানায় । ব্যাস হয়ে গেলও কাজ । আপনার কাজ ও হলো আপনার ছোট বোন ও গিফট পেয়ে খুশি । এজন্যই অনলাইনে কেনাকাটা করা সুবিধাজনক ।

৪) গোপনীয়তার সহিত কেনাকাটা  ।

- ঈদে আকর্ষণীয় কোন ড্রেস পরে চমকে দিতে চান সবাইকে । কিন্তু আপনি যদি শপিং মলে গিয়ে সেই ড্রেস টি কিনেন তাহলে লাভ টা হলো কি!! বাসায় আনার পর ব্যাগ খুলে সবাই তো তা দেখেই ফেলবে কিংবা রাস্তায় কোন ফ্রেন্ডের সাথে দেখা , সেও তখন আপনার আহ্লাদের ড্রেস খানা দেখে ফেলতে পারে । আশার কথা হলো , আপনি যদি পছন্দমতো ড্রেস অনলাইনে অর্ডার দিয়ে গোপনে অর্ডার টি রিসিভ করেন তাহলে আপনি কি না কি কিনলেন তা কেউই দেখতে পেলো না । কারণ ডেলিভারি ম্যান একমাত্র আপনার হাতেই আপনার অর্ডার দেওয়া প্রোডাক্ট টি বুঝিয়ে দিবে । তাই অন্য কেউ দেখে ফেলার ভয় নেই এতে । 

তাই আপনি গোপনীয়তার সহিত কোণ জিনিস কিনতে চাইলে বেছে নিতে পারেন যে কোন ভালো মানের অনলাইন শপ ।


৫) অন্য কাস্টমার দের রিভিউ দেখে কেনাকটা করা  । 

- অনলাইন শপের ওয়েবসাইট গুলোতে একটি অপশন থাকে রিভিউ । যেখানে ওই প্রোডাক্ট টি যারা যার কিনেছেন তারা সেই প্রোডাক্ট এর ভালো খারাপ সম্পর্কে কমেন্ট করতে পারে যা দেখে অন্য আরেকজন ক্রেতা সহজেই সেই প্রোডাক্ট টি সম্পর্কে ধারণা করে ডিশেশন নিতে পারে যে সেকি সেটা কিনবে নাকি কিনবে না !

কিন্তু বাস্তবে শপিং মলে বা দোকানে সেটি যাচাইয়ের সুযোগ কম । কারণ সেখানে কেবল আপনি বিক্রেতার কাছ থেকেই প্রোডাক্ট টি সম্পর্কে ধারণা পাবেন কোন ইউজার এর কাছ থেকে নয় । তাই আপনি প্রোডাক্ট টি সম্পর্কে আসল ধারণা সহজেই পাবেন না। 

এক্ষেত্রে আপনি অনলাইন শপ কেই বাচাই করতে পারেন । 

আগামী পর্বে থাকবে আরো ৫ টি কারণ, কেন আপনি অনলাইনে কেনাকাটা করবেন!! 

Write Comment

Categories